এসপি কার্যালয়ে সাংসদ শামীম ওসমানের আকস্মিক উপস্থিতি

নারায়নগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম: জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদের কার্যালয়ে এসপির সাথে সাক্ষাৎ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান।

সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টা ৫মিনিটে এসপি অফিসে উপস্থিত হন সাংসদ শামীম ওসমান। পরে এসপি হারুন অর রশীদের কক্ষে তার সাথে আলাপে বসেন তিনি।  একান্তে আলাপ শেষে ৫০মিনিট অবস্থান শেষে আলাপ শেষে ৫টা ৫৫ মিনিটে এসপি অফিস থেকে বেরিয়ে যান তিনি।

এর আগে কাউন্সিলর আবদুল করিম বাবু গ্রেপ্তারের পর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়েছিলেন এমপি শামীম ওসমান। তবে এবার কি নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানা যায়নি।

জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ নারায়ণগঞ্জে যোগদানের পর থেকে প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমানের সাথে জেলা পুলিশের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। বিভিন্ন সভা-সমাবেশে পরোক্ষভাবে পুলিশ ও প্রশাসনের নিয়ে বক্তৃতা করেছেন শামীম ওসমান।

সর্বশেষ ৭ সেপ্টেম্বর শহরে আয়োজিত শামীম ওসমানের জনসভায় এক ঘন্টারও বেশি সময় ধরে করা বক্তৃতার বেশিরভাগ সময় জুড়েই ছিল পুলিশ প্রসঙ্গ। পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা নিয়ে সাংসদ যে ক্ষুদ্ধ ছিলেন তার প্রমাণও মিলেছে শামীম ওসমানের ওই জনসভায় রাখা বক্তৃতায়।

এদিকে নারায়ণগঞ্জে যোগদানের পর থেকে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, ভূমিদস্যু, মাদক ব্যবসায়ীদের জন্য ভীতির একটি নাম হয়ে দাড়িয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ। বছরের শুরুতে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, ভূমিদস্যু, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার পর থেকে জেলা পুলিশে বিরাট পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেছে।

এসপি হারুনের সার্বিক  এ্যাকশনে সাংসদ শামীম ওসমানের আত্মীয়, ঘনিষ্টজন ও অনুসারী অনেক নেতাকর্মী হাজতবাস করেছেন। এসব নিয়ে বিগত কয়েক মাস যাবৎ এসপি হারুন ও এমপি শামীম ওসমানের মধ্যকার এই সম্পর্ক বেশ আলোচনার সৃষ্টি করেছে। শামীম ওসমানের হুট করে এসপি অফিসে উপস্থিত হওয়াতেও তৈরি হয়েছে নানা প্রশ্ন। এসপির সাথে এমন কী বিষয়ে আলাপ করতে এসপি অফিসে উপস্থিত হলেন শামীম ওসমান- এই প্রশ্নটিই সবার আগে উঠে আসছে।

তবে কেউ কেউ বলছেন, এসপি ও এমপির বিষয়ে জেলা জুড়ে যে গুঞ্জন চলছে সেসব বিষয়েই আলাপ করতে এবং মধ্যকার দূরত্ব মিটিয়ে নিতেই এ সাক্ষাৎ ও দীর্ঘ আলাপ।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment