তারেক রহমানকে ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক ঘোষণা

নারায়ণগগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম: কাউন্সিলররা সর্বসম্মতিক্রমে তাদের অভিভাবক সংগঠন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক ঘোষণা করেছেন। আজ মঙ্গলবার এক কাউন্সিল সভায় এই সিদ্ধান্ত নেন তারা। ছাত্রদলের গঠন ও পুনর্গঠনসহ ছাত্রদলকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে তারেক রহমানকে ছাত্রদলের গঠনতন্ত্রের সংশোধন, কাউন্সিল আহ্বান, কাউন্সিল মূলতবি করা, ছাত্রদলের নেতৃত্ব নির্ধারণে নির্বাচন পরিচালনাসহ যে কোনো সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত ও ব্যবস্থা গ্রহণের সর্বময় দায়িত্ব প্রদান করেন তারা।

ছাত্রদলের কাউন্সিল পরিচালনা কমিটির উপর আদালত কর্তৃক নিষেধাজ্ঞার প্রেক্ষিতে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে ছাত্রদলের এই কাউন্সিল সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ঢাকা মহানগর ছাত্রদলের উত্তরের সভাপতি ও কাউন্সিলর মিজানুর রহমান রাজের প্রস্তাবে সর্বসম্মতিক্রমে কাউন্সিলর খন্দকার এনামুল হক এনাম সভাপতিত্ব করেন। সভা পরিচালনা করেন কাউন্সিলর রেজাউল করিম টুটুল।

সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের নামে ২৯ তারিখ দিবাগত রাতে ভোটের বাক্স ভর্তি করার মাধ্যমে যে প্রহসন হয়েছে, সেই মধ্যরাতের প্রহসনের নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন আয়োজনের জন্য একটি নির্দলীয় অন্তবর্তীকালীন সরকার গঠনে বিরোধী দলের দাবির প্রতি সমর্থন জানানো হয়। বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কোনো প্রমাণ ছাড়াই তাকে কারারুদ্ধ করার নিন্দা করে এবং মিথ্যা সাজানো মামলায় বিচারের নামে তার প্রতি যে অবিচার চালানো হচ্ছে তার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন তারা।

এই কাউন্সিল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে রাজনৈতিকভাবে হয়রানিমুলক মিথ্যা মামলার নিন্দা এবং সকল মামলা তুলে নেয়ার জোর দাবি জানায়। শিক্ষা খাতসহ সকল খাতে যে মেগা দুর্নীতি হয়েছে- এ ব্যপারে বিচার বিভাগের নেতৃত্বে- বিশিষ্ট নাগরিকদের সমন্বয়ে একটি তদন্তের আয়োজন জরুরি বলে মনে করছে এবং লুটেরাদের বিরুদ্ধে দ্রুত কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানায়।

এই কাউন্সিল দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ নানা জায়গায় শাসকদলীয় ছাত্র সংগঠনের বেপরোয়া চাঁদাবাজি, নৈতিকতাহীন কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা করছে। অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবাধ, নিরপেক্ষভাবে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দেয়ার দাবিও জানান তারা। ছাত্র-ছাত্রীদের শাসক দলীয় ছাত্র সংগঠনের কর্মসূচিতে জোরপূর্বক অংশগ্রহণের নামে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর গেস্টরুমগুলোকে টর্চার সেন্টার বানিয়ে ছাত্রছাত্রীদের ওপর ক্যাডার বাহিনীর নিপীড়ন-নির্যাতন সহ সরকারি বাহিনীর অত্যাচার বন্ধ করার দাবিও জানানো হয়।

ছাত্রদলের নেতৃত্ব নির্বাচনের দায়িত্ব তারেকের কাঁধে

এই কাউন্সিল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমূহে শিক্ষার নামে বাণিজ্যকরণ বন্ধ করে ছাত্র ছাত্রীদের ভর্তি, টিউশন ফি সহ নানা খাতের চার্জ কমানোসহ ছাত্র-ছাত্রীদের সমস্যাবলী জরুরীভাবে সমাধান করার জোর দাবী জানায়। কাউন্সিলে ছাত্রদলের বৃহত্তর স্বার্থে ছাত্রদলের বিভিন্ন পর্যায়ের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীদের অনুরোধ ও পরামর্শে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কেন্দ্রীয় কমিটি বাতিল করার জন্য তারেক রহমানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।

এই কাউন্সিল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ কাউন্সিল অনুষ্ঠানের প্রেক্ষিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নেয়া সকল সিদ্ধান্ত ও পরামর্শের প্রতি আস্থা স্থাপন করে ঘোষণাপত্র পাঠ করা হয়।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment