ফতুল্লায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফেরণে স্বামী-স্ত্রী দগ্ধ

নারায়নগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় একটি বাড়িতে গ্যাস বিস্ফোরণে শরীফ ও ফরিদা নামে স্বামী স্ত্রী দগ্ধ হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোর ৬টায় উপজেলার কায়েমপুর মুফতি নজরুল ইসলামের তৃতীয় তলা বাড়ির নিচ তলায় এঘটনা ঘটে। দগ্ধ ফরিদার অবস্থা আশংকাজনক বলে হাসটাতাল সূত্রে জানাগেছে। তার শরীরের ৮০ ভাগ দগ্ধ হয়েছে।

 

ওই বাড়িটির নিচ তলায় কয়েকটি পরিবার ভাড়া থাকেন আর উপরের দুতলা তিন তলা ও ছাদে টিনের ঘর তৈরি করে সেখানে জামিয়া দারুস সালাম নামে মাদ্রাসা দিয়েছেন বাড়ির মালিক মুফতি নজরুল ইসলাম।

স্থানীয় লোকজনদের অভিযোগ ভোরে বিকট শব্দে বিস্ফোরণের পর আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে খোজ খবর নিতে চাইলেও বাড়ির ম্যানেজার আঃ ওহাব মিয়া কাউকে বাড়ির ভিতরে প্রবেশ করতে দেয়নি। এসময় দগ্ধ ফরিদার চিৎকার শুনে ম্যানেজারের উপর ফুসে উঠলে সে বাড়ির গেইট খুলে দেয়। তখন আশপাশের লোকজন গিয়ে স্বামী স্ত্রীকে উদ্ধার করে শহরের ৩শ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ণইউনিটে পাঠানো হয়।

 

স্থানীয় লোকজন আরো জানান, যে ঘরে বিস্ফোরণ ঘটেছে সে ঘরটিতেই গ্যাসের চুলো। ঘরে গ্যাস লিকেজ হতো অনেক আগে থেকেই কিন্তু বিষয়টি বাড়ির ম্যানেজার জানলেও কোন সমাধান করেনি।

ম্যানেজার আঃ ওহাব মিয়া জানান, সামান্য পুড়েছে। এটা নিয়ে স্থানীয় লোকজন হৈ চৈ করেছে। আমি হাসপাতালে যাচ্ছি তাদের খোজ খবর নিয়ে পরে বিস্তারিত জানাবো।

ঢাকা মেডিক্যাল হাসটাতালের একটি সূত্র জানান, ফরিদার শরীরের প্রায় ৮০‰ দগ্ধ হয়েছে। আর শরীফের সামন্য দগ্ধ হয়েছে তাকে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment