পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান না করার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর, ৯ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি বাড়তে পারে

পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান না করার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর, ৯ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি বাড়তে পারে

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম : করোনা ভাইরাসের ঝুঁকির কারণে আসছে বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠান পালনে সবাইকে নিরুৎসাহিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জনসমাগম এড়ানোর জন্য এর আগে যেমন মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানসহ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানও স্থগিত করা হয়েছে, একইভাবে নববর্ষেও তেমনি জনসমাগম না করার নির্দেশনা সবাইকে দিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এ নির্দেশনা দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সামনে বাংলা নববর্ষ রয়েছে। এই নববর্ষ আমাদের প্রাণের উৎসব। অত্যন্ত উৎসাহ ও জাঁকজমকপূর্ণ উৎসবের মাধ্যমে আমরা এই অনুষ্ঠান পালন করে থাকি।

কিন্তু এ বছর আপনারা জানেন, আমরা ১৭ মার্চ ও ২৬ মার্চের সব অনুষ্ঠান সীমিত করেছি। কোনো ধরনের জনসমাগম যেন না হয়, আমরা সে নির্দেশনা দিয়েছি। নববর্ষের জন্যও একই নির্দেশনা থাকবে।

বাইরে অনুষ্ঠান না করতে পারলেও বাংলা নববর্ষে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় অনুষ্ঠান করে সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ‍

তিনি বলেন, আমাদের স্কুল-কলেজ বন্ধ। কিন্তু সংসদ টিভির মাধ্যমে আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করার সুযোগ করে দিয়েছি। ঠিক একইভাবে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করেও আপনারা গান-বাজনা করতে পারেন। ডিজিটাল মাধ্যমে অনুষ্ঠান করে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিন।

প্রধানমন্ত্রী এসময় আরও বলেন, ব্যক্তিগতভাবে আমার নিজেরও অনেক কষ্ট লাগছে। কারণ আমরাই এই উৎসব শুরু করেছিলাম। এই উৎসব জাঁকজমকপূর্ণভাবে না হওয়াটা কষ্টের। তবু এখনকার ঝুঁকি বিবেচনায় নিয়ে কেউ উৎসব করবেন না।

এদিকে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সামাজিক ‍দূরত্ব নিশ্চিত করতে আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। তবে বিশ্বব্যাপী এখনো এই ঝুঁকি থেকে যাওয়ায় এই ছুটির মেয়াদ ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার সকালে জেল প্রশাসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হয়ে সূচনা বক্তব্যে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস যখন ছড়িয়ে পড়তে থাকে, এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে আমরা সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছি। আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত এই ছুটি ঘোষণা করা আছে।

কিন্তু সারাবিশ্ব এখনো এই ভাইরাসের ঝুঁকিতে আছে। আমরাও বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন নই। তাই এই ঝুঁকি এড়াত আমাদের সেই ছুটি অল্প কিছুদিন বাড়াতে হতে পারে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী গণভবন প্রান্তে উপস্থিত প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এমন ইঙ্গিত দেন, আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত সেই ছুটি বাড়তে পারে।

সেক্ষেত্রে ওই দিন বৃহস্পতিবার হওয়ায় কার্যকরভাবে সাধারণ ছুটি পরবর্তী সাপ্তাহিক ছুটির শেষ দিন শনিবার (১১ এপ্রিল) পর্যন্ত বলবৎ হবে। অর্থাৎ সাধারণ ছুটির মেয়াদ এক সপ্তাহ বাড়তে পারে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment