ত্রান চাওয়ায় বৃদ্ধ কৃষককে রক্তাক্ত করলো চেয়ারম্যান

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম: দরিদ্র প্রতিবেশিদের জন্য ত্রাণ সহায়তা চাইতে সরকারি সহায়তার হটলাইন ৩৩৩ নম্বরে কল করে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের বেদম মারধরের শিকার হয়েছেন নাটোরের লালপুর উপজেলার কৃষক শহিদুল ইসলাম (৬০)। মারধরের পর “আর কাউকে কিছু বললে আরও খারাপ অবস্থা হবে” বলে হুমকি দেন চেয়ারম্যান।

রবিবার (১২ এপ্রিল) ঘটনাটি ঘটে উপজেলার বরমহাটি ইউনিয়নের আঙ্গারিপাড়া গ্রামে। আহতাবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন কৃষক শহিদুল।

ঘটনার পর এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। চেয়ারম্যানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন স্থানীয়রা।

ভুক্তভোগী শহিদুল জানান,আঙ্গারীপাড়া এলাকার ২০০-২৫০ জন দরিদ্র দিনমজুর গত ২০-২৫ দিন থেকে কর্মহীন। নিজেরও আপাতত কাজ নেই। এমতাবস্থায় প্রতিবেশীদের হয়ে সহায়তা চাইতে শনিবার বিকেলে তিনি ৩৩৩ নম্বরে ফোন দেন। রবিবার দুপুরে গ্রামের চৌকিদার জানান, ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এসেছেন আপনার সঙ্গে কথা বলতে। কথামতো ইউপি কার্যালয়ে যাওয়ার পর সেখানে ইউএনও-কে দেখতে পাননি তিনি।

তার অভিযোগ, ইউপি কার্যালয়ে যাওয়ার পর কোনো কথা না শুনে চৌকিদারের হাতে থাকা লাঠি নিয়ে তাকে বেদম মারপিট করেন বরমহাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার । এতে তার শরীরের পেছন দিকে ও পায়ে জখম হয়। মারধরের পর বের করে দেওয়ার সময় চেয়ারম্যান বলেন, “৩৩৩ নম্বরে কেন ফোন দিয়েছিস তার জন্যই এই শাস্তি। একথা কাউকে বললে তোর অবস্থা আরও খারাপ করে দেবো।”

বাড়িতে ফিরলে প্রতিবেশিরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

বিষয়টি ইউএনওকে জানানো হলে রবিবার ওই গ্রামে গিয়ে তিনদিনের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান সাত্তার জানান, বিষয়টি নিয়ে সোমবার বিকেলে ইউএনও তাকে ডেকেছিলেন। সেখানেই মিমাংসা হয়েছে।

তবে কোনো ধরনের সমাধানের হয়নি জানিয়ে ইউএনও উম্মুল বাণীন দ্যুতি বলেন, “৩৩৩ নম্বর থেকে জানানোর পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছিলে। কৃষক শহিদুলকে মারপিট করাটা ঠিক হয়নি।”

ইউএনও আরও জানান, ঘটনার জন্য চেয়াম্যানকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। জবাব পাওয়ার পর এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment