ইফতার অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ, তারাবি পড়তে পারবে একসাথে ১২ জন

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম: করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে পবিত্র রমজান মাসে সব ধরনের ইফতার মাহফিলের নামে অনুষ্ঠানের আয়োজন নিষিদ্ধ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি ১০ জন মুসল্লি ও ২ জন হাফেজসহ মোট ১২ জন মসজিদে এশা ও তারাবির নামাজে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়। তবে কীভাবে ১০ জন মুসল্লি নির্ধারিত হবে তার কোনও সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা দেয়নি মন্ত্রণালয়।

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ বিষয়ে বিস্তারিত নির্দেশনাসহ শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) একটি সার্কুলার জারি করা হবে। তবে ইতোপূর্বে মন্ত্রণালয়ের জারি করা মসজিদে জুমা ও জামাত বিষয়ক নির্দেশনা কার্যকর থাকবে। এছাড়া রমজান মাসে ইফতার মাহফিলের নামে কোনও ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করা যাবে না।

প্রসঙ্গত, ৬ এপ্রিল মুসল্লিদের ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা জরুরি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, শুধু মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেমরা মসজিদে জামাতে নামাজ আদায় করবেন।

জুমার জামাতে অংশগ্রহণের পরিবর্তে ঘরে জোহরের নামাজ আদায়ের নির্দেশ দেওয়া যাচ্ছে। মসজিদে জামাত চালু রাখার প্রয়োজনে খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমরা মিলে পাঁচ ওয়াক্তের নামাজ অনধিক পাঁচ জন এবং জুমার জামাতে অনধিক ১০ জন শরিক হতে পারবেন। বাইরের মুসল্লিরা মসজিদের জামাতে অংশ নিতে পারবেন না।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment