ফতুল্লায় প্রেমের টানে প্রেমিক-প্রেমিকা উধাও

ফতুল্লা সংবাদদাতা : ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরে প্রেমিকের হাত ধরে ঘর ছেড়েছে অনন্য রানী মন্ডল (১৮)। সোমবার (২৭ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরের ঋষিবাড়ি এলাকার জয় চন্দ্র দাসের (২৩) সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্কের টানে তিনি ঘর ছেড়েছেন বলে জানা যায়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরের ঋষিবাড়ি এলাকার শিশুরাজ দাসের বাড়ির ভাড়াটিয়া দুলাল মন্ডলের মেয়ে অনন্য রানী মন্ডল। অন্যদিকে প্রেমিক জয় চন্দ্র দাস একই এলাকার নিখিল চন্দ্র দাসের ছেলে। তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। আর সে টানেই তারা ঘর ছেড়ে পালিয়েছে।

এদিকে মেয়ের বাবা দুলাল মন্ডলের অভিযোগের ভিত্তিতে ফতুল্লা থানার এসআই মিজানুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সোমবার (২৭ এপ্রিল) রাতেই জয় চন্দ্র দাসের বাড়িতে গিয়ে মেয়েকে হাজির করার জন্য জয় চন্দ্র দাসের পরিবারকে চাপ দেয়। তবে জয় চন্দ্র দাসের বাবা নিখিল চন্দ্র দাস পুলিশকে জানায় আমরাও তো ছেলেকে খুঁজে পাচ্ছি না। আপনারাও চেষ্টা করেন আমরাও চেষ্টা করি। দুলাল মন্ডল অভিযোগ করেন, তার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে। মেয়েকে হাজির করতে না পারায় বুধবার ২৯ এপ্রিল দুপুরে ছেলের বাবা নিখিল চন্দ্র দাসকে বাড়ির সামনের রাস্তা থেকে পুলিশ আটক করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এর আগে মেয়ের বাবা দুলাল মন্ডল ও ছেলের বাবা নিখিল চন্দ্র দাসকে নিয়ে এলাকার মুরুব্বিরা ছেলে ও মেয়েকে বিয়ে দেয়ার জন্য একটি আপোষনামা করে।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার এসআই মিজানুর রহমান বলেন, ছেলে-মেয়ে আসতেছে বলছে। সন্ধ্যার পরে দুপক্ষই আসবে। ‘ছেলের বাবাকে আটক করেছেন’ সাংবাদিকের এমন এক প্রশ্নে তিনি বলেন, না, না আটক করা হয় নাই। থানার ভিতর বসে আছে। ছেলে-মেয়ে হাজির করতেছি। কোন আটক নাই।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment