সাংবাদিক জুম্মন সোহেলকে মাদক ব্যবসায়ীর হুমকী

নিজস্ব প্রতিবেদক : দৈনিক সোজা সাপটা পত্রিকার ফটো সাংবাদিক জুম্মন সোহেল গোগনগর ডিয়ারা এলাকার মাদক সম্রাট, পুলিশ সোর্স রনি ওরফে কসাই রনি প্রাননাশের হুমকি প্রদান করায় জুম্মান হোসেন সোহেল এসপি বরাবর লিখিত অভিযোগ ও সদর মডেল থানায় জিডি দায়ের করেছে।জিডি নং-৮৮৩ তারিখ৩০/৬/২০২০ইং।

সিরাজুল হকের পুত্র সাংবাদিক মোঃ জুম্মন হোসেন সোহেল উল্লেখ করেন, বিবাদী ১। রনি @ কসাই রনি (২৪) পিতা-কবির হোসেন (সৎ পিতা), ২। কবির হোসেন (৪৮) পিতা-মৃত: শুক্কুর মিয়া, উভয় সাং-আল আমিন রোড, ডিয়ারা শেষ মাথা, থানা ও জেলা-নারায়ণগঞ্জ দ্বয়ের বিরুদ্ধে এই মর্মে অভিযোগ দায়ের করিতেছি যে, আমি নারায়ণগঞ্জ হইতে প্রকাশিত দৈনিক সোজাসাপটা পত্রিকায় নিজস্ব প্রতিবেদক ও ফটো সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত আছি। উল্লেখিত বিবাদীদ্বয় এলাকায় মাদক ব্যবসা সহ বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম করিয়া বেড়ায়।

বিবাদীদের অপকর্মে এলাকার লোকজন অতিষ্ঠ।এই ব্যাপারে গত ইং ২৪/০৪/২০১৯ তারিখে দৈনিক ইয়াদ প্রত্রিকায় ১নং বিবাদীর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশিত হয়। উক্ত সংবাদের বিষয়ে আমি কোন প্রকার অবগত ছিলাম না। কিন্তু উল্লেখিত বিবাদীদ্বয় উক্ত সংবাদের জের ধরিয়া আমার সাথে শত্রæতা পোষণ করত: আমার জান মালের ক্ষতিসাধনের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র করিয়া বেড়াইতেছে। গত ইং ২৫/০৪/২০১৯ তারিখে আমি বাদী হইয়া ১নং বিবাদী রনির বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করিয়াও কোন প্রতিকার পাই নাই।

বর্তমানে উল্লেখিত বিবাদীদ্বয় আমার উপর ক্ষিপ্ত হইয়া আরো বেপরোয়া ভাবে আমার ক্ষতিসাধনের পায়তাড়া করিতেছে।

গত ইং ২৯/০৬/২০২০ তারিখ রাত্র অনুমান ১১.০০ ঘটিকার সময় কাশিপুর হইতে আমার বোন শিরিন (৩৯) ও ভাগ্নি অহনা (১২) আমাদের বর্ণিত ঠিকানার বাসায় যাওয়ার পথে ১নং বিবাদীর উল্লেখিত ঠিকানার বাসার সামনে পৌছাইলে উক্ত বিবাদী আমার বোন ও ভাগ্নির পথরোধ করিয়া অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করত: মারপিট করিতে উদ্যত হয় এবং সময় সুযোগ বুঝিয়া খুব শিঘ্রই আমাকে জীবনের তরে শেষ করিয়া দিবে বলিয়া হুমকি প্রদান করে।

আমার বোন ও ভাগ্নি আমাদের বাসায় আসিয়া কান্না জড়িত কণ্ঠে বিষয়টি আমাকে অবগত করে। উল্লেখিত বিবাদীদ্বয় অত্যান্ত খারাপ প্রকৃতির লোক।

ইতিপূর্বে ১নং বিবাদী রনি এলাকার রাকসু নামের এক যুবকের গলা কাটিয়া হত্যার চেষ্টা করে এবং বর্তমানেও বিভিন্ন ধরনের অপকর্মে লিপ্ত রহিয়াছে।

বিবাদীদেরকে আইনের আওতাভ‚ক্ত করিয়া ন্যায় বিচার না করিলে যে কোন সময় নিরপরাধ মানুষের প্রাণহানী সহ বড় ধরনের অঘটন ঘটিতে পারে।

উল্লেখিত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন জুম্মন হোসেন সোহেল।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment