সাংবাদিকদের সাথে সন্ত্রাসী বাহিনীর তাফাল্লিং

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় দুইপক্ষের মুখোমুখি অবস্থানে সংঘর্ষের আশংকায় পেশাগত দায়িত্ব পালনে গিয়ে লাঞ্ছিত হয়েছে টেলিভিশন ও জাতীয় দৈনিক এর সাংবাদিকরা।

রবিবার (১৯ জুলাই) বিকালে ফতুল্লা থানাধীণ পোস্ট অফিস এলাকার এস.কে টেক্সটাইল মিলসে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে বাধা সহ তাদের সাথে থাকা ক্যামেরা, মোবাইল, ল্যাপটপ ও প্রয়োজনী ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে।

আলীগঞ্জ এলাকার হাজি বোরহান উদ্দিনের ছেলে নুরুল হুদা ও তাঁর ছোট ভাই সহ ২০/২৫ জনের সশস্ত্র যুবক সাংবাদিকদের সাথে অশোভন আচরণ করে শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত ও চাকরি খেয়ে ফেলা সহ বিভিন্ন ভয়ভিতি দেখায়।

এ বিষয়ে দৈনিক সকাল বার্তা প্রতিদিন এর প্রকাশক-সম্পাদক ও এস.এ টেলিভিশনের নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি প্লাবন রাজু ভুক্তভোগীদের নিয়ে রাতেই ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, রবিবার অনুমান সাড়ে তিনটায় লোকমারফত শুনে ফতুল্লা ধানাধীন পোষ্ট অফিস রোডের এস,কে টেক্সটাইল মিলস্ এ বিরাজমান দুই পক্ষের মধ্যকার বিরোধের সূত্র ধরে সংঘর্ষ হওযার সম্ভাবনা জেনে ঘটনাস্থলে সরেজমিনে অনুসন্ধানে উপস্থিত হন বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরা। তখন বাদি প্লাবন রাজু সহ মোহনা টেলিভিশনের নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আজমির ইসলাম, বাংলা টিভির নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি হাসান মজুমদার বাবলু, আনন্দ টেলিভিশনের নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি সৈয়দ সিফাত আল রহমান লিংকন, দৈনিক সংবাদের প্রতিনিধি আল সামাদ রুবেল, নিউজ টুডে এর আহম্মেদ শুভ সহ বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মী পেশাগত দায়িত্ব পালন করার জন্য ঘটনাস্থলে যায়।

ওইসময় জনৈক রেজাউল করিম রিপন জানান, তিনি একটি সংবাদ সম্মেলন করে বক্তব্য দিতে চান। সংবাদকর্মীরা যেন তার বক্তব্যটি ধারণ করে।এরপর কারখানার ভিতরের একটি কক্ষে সংবাদ সম্মেলন শুরু করতেই ফতুল্লা থানার আলীগঞ্জ এলাকার বোরহান হাজীর ছেলে নূরুল হুদা ও তার ছোট ভাই সহ ২০/২৫ জন সশস্ত্র যুবক সেই কক্ষে ঢুকে সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালমন্দ, অশোভন আচারণ ও শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করে। এ সময় কক্ষের ভিতরে লাইট বন্ধ করে দিকে থাকে ও দুবৃত্তরা সাংবাদিদের ক্যামেরা, ল্যাপটপ ও সাথে থাকা মোবাইল ব্যাগ সহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় জিনিস জোরপূর্বক ছিনাইয়া নেয়ার চেষ্টা করে। সাংবাদিকরারা বাধা প্রদান করিলে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই রুমটির ভিতরে অবরুদ্ধ করে রাখে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, সাংবাদিকদের সাথে অশোভন আচরণ ও হুমকী দেয়া নিয়ে নিরাপত্তার জন্য একটি সাধারণ ডায়েরী হয়েছে। থানার এসআই শরিফুল ইসলামকে এটি দেখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আইন অনুযায়ী যা করণিয় তা করা হবে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment