নিজে বাচঁতে বরিশাইল্লা টিপুকে ধরিয়ে দিলো চোরা আইয়ুব

নিজস্ব প্রতিবেদক : ছাত্রলীগ নেতা মুন্নাকে এসিড দিয়ে জ্বলসে ও কুপিয়ে হত্যা চেস্টার মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামী বরিশাইল্লা টিপু কে সু-কৌশলে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দিয়েছে তারই ঘনিষ্ঠ বন্ধু আইয়ুব ওরফে রেডিও চোর আইয়ুব এমনটাই বরিশাইল্লা টিপুর স্বজনদের।

ঘটনার বিবরনীতে জানা যায়,ফতুল্লার নব্য গডফাদার, মহা প্রতারক,মামলাবাজ,শির্ষ স্থানীয় প্রতারক বরিশাইল্লা টিপুকে(৬০) চলতি মাসের ৩০ তারিখ বুধবার দুপুরে ফতুল্লা ভূঁইগড় এলাকা থেকে তোকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত টিপুর বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ নেতা মুন্নাকে এসিড মেরে হত্যা চেষ্টা মামলাসহ ২টি মামলার ওয়ারেন্ট ছিল।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে নাম লিখিয়েছে সরকার দলীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কিছুদিন পূর্বে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নাম লেখানো বরিশাইল্লা টিপু হয়ে উঠেছে অতি মাত্রায় বেপোরোয়া। স্থানীয় মহল জুড়ে জন্ম দিচ্ছে একর পর অপরাধমূলক কর্মকান্ড। এরই ধারাবাহিকতায় গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার রাতে বরিশাইল্লা টিপু ও তার পালিত সন্ত্রাসী বাহিনী প্রথমে নির্মম ভাবে কুপিয়ে ও পরে এসিড দিয়ে জ্বলসে দিয়ে হত্যার চেস্টা চালায় ছাত্রলীগ নেতা সৈয়দ মুন্নাকে।

এ ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ নেতা মুন্নার ভাই বাদী হয়ে রফিকুল ইসলাম টিপু ওরফে বরিশাইল্লা টিপুকে প্রধান আসামী সহ ছয় জনের নাম উল্লেখ্য করে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার রাতেই ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ বরিশাইল্লা টিপুর অফিসের বাইরের রাস্তা থেকে সাইফুল নামক এজাহার নামীয় এক আসামী কে গ্রেফতার করে।
ঘটনার পর থেকেই বরিশাইল্লা টিপু পলাতক ছিলো।

স্থানীয় একাধিক সূত্র মতে,ফতুল্লা বালুর ঘাটের বালু ব্যবসায়ী আব্দুর রব ওরফে ক্যাপ্টেন রব,যমুনা গেইটের বিপরীতে রুসেন হাউজিংয়ের বাসিন্দা মোস্তাক আহম্মেদ,পৌষাপুকুর পাড় এলাকার কাদির মিয়া,পাকিস্তান খাদ এলাকার রওশানারা ও অপর এক বিধবা মহিলা
সহ স্থানীয় মহলের আরো একাধিক জনের নিকট থেকে প্রতারনামূলক দেড় কোটি টাকার ও বেশি আত্মসাৎ করে এক বছরের ও অধিক সময় ধরে আত্ন গোপনে ছিলো রেডিও চোর আইয়ুব।আত্নগোপনে থাকাবস্থায় রেডিও চোর আইয়ুব বরিশাইল্লা টিপুর সঙ্গী হয়ে সর্বত্র চষে বেড়ালেও সাম্প্রতিক সময়ে নারী ঘটিত একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সূত্রপাত হয়।আর তাই রেডিও চোরা আইয়ুব বরিশাইল্লা টিপু কে কোন কিছু বুজতে না দিয়ে কৌশলে পুলিশের হাতে গ্রেফতার করিয়ে দিয়েছে।স্থানীয়রা জানায় রেডিও চোরা আইয়ুব ফতুল্লা বাজারে একটি দোকান থেকে রেডিও চুরি করতে গিয়ে ধরা পরলে তাকে তারের খুটির সঙ্গে বেধে রাখা হয়েছিলো।এরপর থেকে তার নাম হয় রেডিও চোরা আইয়ুব।তাছাড়া তার বিরুদ্বে রয়েছে দু দুটি অটোরিক্সা চুরির অভিযো। এছাড়া স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে ফতুল্লাঞ্চলের ত্রাস সমর গুন্ডার সাথে ছিনতাই করতে গিয়ে পঞ্চবটী পাচঁতলা কলোনীর পিছনের ইট ভাটার শ্রমিকদের হাতে গণধোলাইয়ের শিকার হয় রেডিও চোরা আইয়ুব।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment