মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলাধীন বক্তবলী পরগণার স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রাণ উৎস্বর্গকারী ১৩৯ জন শহীদদের স্মরণে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবং আলীরটেক ইউনিয়ন নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী সায়েমের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) আলীরটেক কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে এলাকাবাসীর আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। একইসাথে জনসাধারণের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়।

আলোচনা সভায় সায়েম আহমেদ বলেন, ১৯৭১ সালে এদেশকে স্বধীন করার লক্ষে
তৎকালীন স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রাণ উৎস্বর্গকারী শহীদদের স্মরণে মহান আল্লাহতালার কাছে তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে আরোও বলেন, আর চার মাস পরে ইউনিয়ন নির্বাচন। কিন্তু আমাদের ইউনিয়ন নির্বাচনে ৪০ বছর যাবৎ কুড়েরপাড়,গোপচর,গঞ্জ কুমারিয়া সহ আলীরটেক থেকে কোন প্রার্থী চেয়ারম্যান নির্বাচন করে জয় লাভ করতে পারে নাই। কেউ যদি প্রার্থী হয়ে আসতে চায় তাকে ধমানোর জন্য বিভিন্ন ভাবে বাধা দেয়া হয়। এমনকি আমাদের এলাকার কিছু দুষ্ট লোকের সহযোগিতায় অবৈধ অর্থ লেনদেনের মাধ্যমে জনগণকে বিক্রি করে দিচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া আওয়ামীলীগের পক্ষ হতে সদর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সেক্রেটারিসহ এখানকার আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে আমি আওয়ামী পরিবারে সন্তান হিসেবে আমাকে নৌকা প্রতীক দেয়ার অনুরোধ জানাই। একইসাথে আপনাদের সকলের দোয়ায় নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে চাই। স্বাধীনতার পর থেকে আজ পর্যন্ত আওয়ামীলীগের কোন নেতা বা কর্মী এখানে চেয়ারম্যান হতে পারে নাই। বিএনপি জামাতের লোকেরা চায়না এখানে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান হউক। তাই আমি আওয়ামী লীগের পক্ষ হতে নৌকা প্রতীক নিয়ে মানুষের ভোটের মাধ্যমে চেয়ারম্যান হতে চাই।

তিনি বলেন, অনেকে চায়না আমদের এলাকায় চেয়ারম্যান হউক।আমরা স্বাধীন ভাবে কাজ করে আলীরটেক ইউনিয়নের উন্নয়ন করি। আপনারা যদি এখানকার পরিবর্তন এবং এই এলাকার উন্নয়ন চান, তাহলে আমি নির্বাচনের মাধ্যমে মানুষের ভোটে জয়ী হয়ে আলীরটেক ইউনিয়ন উন্নয়ন করতে চাই । এই এলাকাটাকে রোল মডেল হিসেবে পরিবর্তন করতে চাই। গত নির্বাচনে আমি প্রার্থী ছিলাম কিন্তু তারা আমার সাথে নির্বাচন করতে সাহস দেখাইতে পারে নাই। শহরের বিভিন্ন অপশক্তির মাধ্যমে তারা আমাকে হুমকি ধমকি দিয়েছে কিন্তু আমি ভয় পাই নাই। আজকে অন্য যারা নির্বাচন করতে চাঁন তারা তখন কোন প্রতিবাদ করে নাই।

তিনি আরও বলেন, আমি এই এলাকার পরিবর্তন করতে চাই। এই এলাকায় আমি ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করতে চাই। একইসাথে এখানে শান্তি বজায় রাখতে চাই। আর এ জন্য আপনাদের সহযোগিতা প্রয়োজন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযুদ্ধা নাজির আহমেদ বলেন, এলাকায় উন্নয়ন করতে চাইলে শিক্ষিত এবং তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। আর আলীরটেক ইউনিয়নে নির্বাচনে সায়েমকে নৌকা প্রতীক দেয়ার জন্য আমরা দলের কাছে অনুরোধ করবো। তাকে নির্বাচিত করলে এখানকার অনেক উন্নয়ন হবে।
অনুষ্ঠানে বক্তারা আরোও বলেন, এ ইউনিয়নে যারা জনপ্রতিনিধি ছিলেন তারা যদি অত্র অঞ্চলের জনসাধারণের চিন্তা করতেন তাহলে এই ইউনিয়নে রাস্তাঘাট এত সরু এবং ইউনিয়নে অপরিকল্পিত কাজে কারনে আমাদের এত দুর্ভোগ।
আলীরটেক মোহাম্মদীয়া নূরীয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম আতাউল হক সরকার সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ উল্যা আল মামুন, যুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা জুলহাস উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, সমাজ সেবক জাকির হোসেন, তোফাজ্জল হোসেন,আলী আকবর মাস্টার, বেলায়েত হোসেন,শুক্কুর মেম্বার, এম এ মান্নান, আলোকিত বক্তাবলীর সভাপতি নাজির আহম্মেদ,নারায়ণগঞ্জ সদর থানা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এসটি আলমগীর সরকার,৫নংওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ইসমাহিল মাদবর, সেক্রেটারি জামাল হোসেন, ৪নং ওয়ার্ডের সভাপতি আ:মালেক, সেক্রেটারি দেলোয়ার হোসেন, ৬ নং ওয়ার্ডের সেক্রেটারি জয়নাল আবেদিন, ৩নং ওয়ার্ডের সেক্রেটারি বাদশা মিয়া, ২নং ওয়ার্ডে সেক্রেটারি সভাপতি কামাল হোসেন,১ নংওয়ার্ডের আওয়ামীগের সেক্রেটারি জাহান উল্লাহ, ইউনিয়ন যুবলীগের সেক্রেটারি জাহাঙ্গীর সরকার, আলীরটেক সরকার বাড়ীর যুবউন্নয়ন এর সভাপতি সাদ্দাম সরকার, সেক্রেটারি সফিকুল সরকারসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও যুবলীগ সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ছিলেন।
এসময় অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন হযরত মাওলানা আতাউল হক সরকার।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment