কিছু সাহসী মানুষ ও পেশাজীবি সাংবাদিকদের সম্মাননা জানাল চেঞ্জ ফাউন্ডেশন

চেঞ্জ ফাউন্ডেশন এক অগ্রযাত্রার নাম। যার পেছন থেকে কাজ করে যাচ্ছেন একদল পেশাজীবি যুবক, যাদের আগ্রহের কারনে তৈরি হচ্ছে নব দিগন্ত। যার ধারাবাহিকতায় গত (২২ জানুয়ারি) শুক্রবার ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাব মিলতায়নে এক সম্মাননা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

যেখানে সম্মান জানানো হয় কিছু সংখ্যক তরুন উদ্যম ও পেশাজীবি যুবকদের যারা তাদের পেশার মাধ্যমে করোনাকালীন সময়ে অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করে সমাজে মানুষের আস্থাভাজন হতে পেরেছেন।

তারই ধারাবাহিকতায় চেঞ্জ ফাউন্ডেশন সম্মাননা স্নারক তুলে দেয় করোনাকালীন সময়ে ছুটে যাওয়া এক যুবক যিনি ফতুল্লা অঞ্চলে ২৭ টি দাফন এর সাথে সরাসরি যুক্ত ছিলেন তার নাম মোঃ আশরাফুল হক আশু, নারায়নগঞ্জের ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট খানপুর হাসপাতালের সেচ্ছাসেবী ফয়সাল আহমেদ রাতুল, নারায়ণগঞ্জ দেলপাড়া এলাকার ত্রানে বিশেষ অবদানের জন্য মুরাদ হোসেন খোকা এবং ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার সকল কাজ দেখভাল করার জন্য সর্ব জনাব খন্দকার লুতফর রহমান স্বপন, যিনি ত্রান এবং দাফনে সরাসরি দেখভাল করতেন।।

উক্ত অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলওয়াত করেন নারায়ণগঞ্জ জেলার নির্বাহী সদস্য মাওলানা সাব্বির আহমেদ তুহিন। নির্বাহী কমিটির সাধারন সম্পাদকের প্রানবন্ত সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের মূল পর্বে আগত অতিথিদের অভ্যর্থনা জানান চেঞ্জ ফাউন্ডেশন এর সভাপতি জনাব ইঞ্জিনিয়ার নাসির উদ্দিন জুয়েল ও নারায়নগঞ্জ জেলার সদস্য সচিব জনাব এডভোকেট মাহবুবুল হক ফোরকান।

দিতীয় পর্বে চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের বর্তমান কার্যক্রম ও ভবিষ্যতে কার্যক্রম প্রক্রিয়া তুলে ধরেন চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক জনাব আব্দুল্লাহ আল ফারুক রিংকু তিনি বলেনঃ ২০২০-২০২১ সালের শীতবস্ত্র ৮ ক্যাটাগরিতে ৪ ধাপে প্রায় ১২০০ পিস কম্বল, সুয়েটার, কান টুপি ও ভারী পলিথিন বিতরন করা হয় এবং ২০২০- ২০২১ সালের বিভিন্ন খাত ওয়ারী প্রজেক্ট উপস্থাপন করেন। তার মধ্যে দিন ব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প গঠন এবং যাকাত ভিত্তিক স্বাবলম্বী প্রোগ্রাম উল্লেখযোগ্য ।

প্রজেক্ট বাস্তবায়নের বাস্তব অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন পরিচালক জনাব আল আমিন আলী। চেঞ্জ ফাউন্ডেশন কেন অন্যদের চেয়ে ব্যতিক্রম সে সম্পর্কে উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য দেলোয়ার কাজল বলেনঃ যে চেঞ্জ ফাউন্ডেশন কারও নামের জন্য কাজ করে না, তারা কাজ করে অসহায় এবং দারিদ্র্য দূরীকরণে যা কিনা তাদের গঠনতন্ত্রে ৯ এর ধারায় উল্লেখিত এবং প্রত্যেক সদস্য তাদের নিজেদের স্বীয় গুণাবলী দিয়ে মানুষের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

চেঞ্জ ফাউন্ডেশন এর লক্ষ্য ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তুলে ধরেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি জনাব নাসির উদ্দিন জুয়েল। তিনি বলেন কিভাবে চেঞ্জ ফাউন্ডেশন আগামী দিনে এর পরিধি সম্প্রসারণ করে সকল অঞ্চলে তার কর্ম বিস্তার লাভ করবে, এই লক্ষ্য নিয়ে তারা তাদের কাজ করে যাবে এবং স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে হাসপাতাল ভিত্তিক সেবা প্রদান করবে। চেঞ্জের অগ্রযাত্রায় সংবাদ পরিবেশন করায় তিনি সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক আশুর উপস্থাপনায় তৃতীয় ধাপে চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের সেচ্ছাসেবী জনাব আবু সাঈদ, এডঃ মাহবুবুল হক ফোরকান, নুর হোসেন পলাশ, সাজ্জাদ মোল্লা, রনি শিকদার, মাওঃ সাব্বির, আল আমিন মাহমুদ, নাসির উদ্দিন জুম্মনদের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দেন ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব লুতফুর রহমান স্বপন।

মূল আয়োজন যাদের নিয়ে সেই সব পেশাদার সাংবাদিকদের হাতে সম্মাননা স্মারক ও ক্রেষ্ট তুলে দেওয়া হয়। নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কমের সম্পাদক ও ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের সদস্য  মনির হোসেনের হাতে সম্মাননা তুলে দেন মাহমুদুল হাসান মোহন ও আবু সাঈদ। নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডট নেট এর রিপোর্টার ও ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক নিয়াজ মোঃ মাসুমের হাতে সম্মাননা তুলে দেন সালাহ উদ্দিন হৃদয় ও মামুন আকন।নারায়ণগঞ্জের কাগজ ডট কমের সম্পাদক ও দৈনিক সোজা সাপটা পত্রিকার রিপোর্টার রাকিব চৌধুরী শিশিরের হাতে সম্মাননা তুলে দেন সাজ্জাদ মোল্লা। বিবিসি লাইভ ২৪ ডট কমের রিপোর্টার সিহাব হোসেন আনোয়ারের হাতে সম্মাননা তুলে দেন রমজান আলী। নারায়ণগঞ্জের আলো ২৪ ডট কমের সম্পাদক ও ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের সদস্য আব্দুল আলিম লিটনের হাতে সম্মাননা তুলে দেন এইচ আর এম সাঞ্জানি ও মিজানুর রহমান ওয়াসিম । আলোকিত নারায়ণগঞ্জ ২৪ ডট নেটের নির্বাহী সম্পাদক ও ফতুল্লা  রিপোর্টার্স ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক  নজরুল ইসলাম সুজনের হাতে সম্মাননা তুলে দেন রনি শিকদার। নারায়ণগঞ্জ টপ নিউজ ও নারায়ণগঞ্জ সিটি প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহসীন আলমের হাতে সম্মাননা তুলে দেন মোঃ শরিফুল ইসলাম তুষার ও মিজানুর রহমান। দৈনিক নব অভিযান স্টাফ রিপোর্টার ও ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি রণজিৎ মোদকের হাতে সম্মাননা তুলে দেন নারায়ণগঞ্জ জেলার নির্বাহী সদস্য নুর হোসেন পলাশ। করোনাকালীন সময়ে সাহসিকতার জন্য ফয়সাল আহমেদ রাতুলের হাতে সম্মাননা তুলে দেন ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি রণজিৎ মোদক। করোনাকালীন সময়ে ত্রান কার্যক্রমে বিশেষ ভূমিকার জন্য জনাব মুরাদ হোসেন খোকার হাতে সম্মাননা স্মারক ও ক্রেষ্ট তুলে দেন চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক  মোঃ আশরাফুল হক আশু।। করোনাকালীন সময়ে সাহসিকতা ও বিশেষ অবদানের জন্য চেঞ্জ ফাউন্ডেশন এর সাধারণ সম্পাদক মোঃ আশরাফুল হক আশুর হাতে সম্মাননা তুলে দেন ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন । নারায়ণগঞ্জ জেলায় বিশেষ অবদান ও অসীম সাহসিকতার জন্য ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এর হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক জনাব আব্দুল্লাহ আল ফারুক রিংকু এবং উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য  দেলোয়ার কাজল এবং ক্রেষ্ট তুলে দেন চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের সভাপতি জনাব নাসির উদ্দিন জুয়েল সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক আশু, কোষাধ্যক্ষ আল আমিন আলী এবং অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে সেচ্ছাসেবী সম্পাদক জনাব আবু সাঈদ সকলের জন্য আপ্যায়নের ব্যবস্থা করেন।। অনুষ্ঠানে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন চেঞ্জ ফাউন্ডেশনের প্রচার সম্পাদক  নজরুল ইসলাম সুজন। সর্বশেষ আশরাফুল হক আশু অনুষ্ঠানের সফল সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment