শাশুড়িকে হত্যার চেষ্টা, জামাই আটক

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম ডেস্ক : ফতুল্লায় পারিবারিক কলহের জের ধরে শাশুড়ির মাথায় ও বুকে কাঁচি দিয়ে খুঁচিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে কবির হোসেন (২৪) নামে এক যুবক।

রোববার (১৬ মে) রাত সাড়ে আটটায় সদর উপজেলার ফতুল্লা থানাধীন পাগলা শাহিবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জামাতা কবির হোসেনকে রক্তমাখা কাঁচিসহ আটক করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শাশুড়ি রাহিমা বেগমকে (৪০) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেছেন স্থানীয়রা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা থানার পানখালী গ্রামের আলম হাওলাদারের ছেলে কবির হোসেন ফতুল্লার পাগলা শাহিবাজার এলাকার বাচ্চু মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে বাসিরুল বেগমকে (২০) দুই বছর আগে বিয়ে করেন।

বিয়ের পর থেকে পারিবারিক নানা বিষয় নিয়ে কবিরের সঙ্গে তার শাশুড়ির বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে বাড়ির কাছে সড়কে শাশুড়িকে একা পেয়ে মাথায় ও বুকে একাধিক কাঁচি দিয়ে আঘাত করে হত্যার চেষ্টা করে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় কবিরকে স্থানীয় লোকজন আটক করে পুলিশে দেয়।

কবিরের দাবি, তার স্ত্রী বাসিরুল বাবার বাড়ি আসলে আর স্বামীর বাড়ি যেতে চাইতো না। বাসিরুলকে নিতে আসলে তার শাশুড়ি রাহিমা বেগম বাধা দিতেন ঝগড়া করতেন।

সতেরোদিন আগে তাদের একটি পুত্র সন্তান জন্ম হয়। তখন স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে বাড়ি যেতে চাইলে তার শাশুড়ি বাধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাশুড়িকে হত্যার পরিকল্পনা করেন কবেন তিনি।

সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী বাড়ি থেকে ধারাল বড় কাঁচি নিয়ে এসে শ্বশুরবাড়ির কাছে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকে। এক পর্যায়ে শাশুড়ি আসা মাত্রই কাঁচি দিয়ে তার মাথায় ও বুকে একাধিক আঘাত করে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, শাশুড়িকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে কবিরকে আটক করা হয়েছে।

আহত নারীর চিকিৎসা চলছে ঢাকা মেডিকেলে। ঘটনাটি তদন্ত চলছে। তদন্ত অনুযায়ী পরবর্তীকালে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment