প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসবের সম্পন্ন

নারায়ণগজ্ঞ নিউজ ২৪ ডট কম : ফতুল্লার দাপা বালুর ঘাট বুড়িগঙ্গা নদীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসবের সম্পন্ন হয়েছে। যাত্রামঙ্গলের জন্য সকালে মন্ডপে মন্ডপে ছিল নারী, পুরুষ ও শিশুদের উপচে পড়া ভীড়। এর পরপরই ফুল, বেলপাতা, ধান ও দুর্বা দিয়ে চলে অঞ্জলী। ভক্তরা তাদের কামনা বাসনা পুরণের জন্য মায়ের পায়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী দেয়। স্বামীর সংসারের মঙ্গলার্থে সিদুঁর খেলায় মেতে উঠে। দর্পণ বিসর্জনের আগেই ঢাক-ঢোল আর কাশীর বাজনায় ফুটে ওঠে মা দুর্গার বিদায়ী বার্তা। ‘ঠাকুর থাকবে কতক্ষণ, ঠাকুর যাবে বিসর্জন’ এ বাজনায় ভক্তদের মনে বিষাদের ছায়া নেমে আসে। ধর্মীয় দূর্গোৎসব প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
সোমবার দুপুর ৩টায় লালপুর বটতলা পূজা মন্ডপ, দাপা ঋষিবাড়ী সার্বজনীন পূজা মন্ডপ ও পিলকুনী পূজা মন্ডপে দূর্গা মন্দিরের প্রতিমা ফতুল্লার দাপা বালুর ঘাট বুড়িগঙ্গা নদীতে বিসর্জন দেওয়া হয়েছে। বিসর্জনের সময় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে উৎসব দেখা দিয়েছে। এসময় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ, কোস্টগার্ড ও আনসার বাহিনী উপস্থিত ছিলেন।
ফতুল্লার দাপা বালুর বুড়িগঙ্গা নদীর ঘাটে ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত বিজয়া মঞ্চে লালপুর বটতলা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক অর্জুন দাসের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ফতুল্লা পূজা উদযাপন পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাংবাদিক রণজিৎ মোদক। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লালপুর বটতলা মন্দির কমিটির সভাপতি নীল রতন দাস।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সুমন ঘোষ, প্রদীপ দত্ত, সুমিত দাস, প্রদীপ কুমার দ্বীপ, শ্যামল সরকার, বীরেন দাস সহ বিভিন্ন পূজা মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ।ফতুল্লা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি রণজিৎ মোদক তার বক্তব্যে বলেন, ফতুল্লায় মোট ২৬টি পূজা মন্ডপে সুষ্টুভাবে পূজা শেষে প্রতিমা সমূহ বিসর্জন দেওয়া হয়। এবারের পূজা সুষ্টুভাবে সম্পন্ন করায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসনসহ এলাকাবাসীকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

 

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment