তুছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয় হত্যার চষ্টা !

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কম ডেস্ক : ফতুল্লায় তুছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয় হত্যার চষ্টা চালিয়েছে প্রতিবেশীরা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (২ জুন) রাতে পাগলা নদলালপুর এলাকায়। আহতরা হলেন-নদলালপুর এলাকার মৃত.বাছেদ মিয়ার ছেলে মেহেদী হাসান সেলিম (৪২) ও তার স্ত্রী দিয়া আক্তার (৩৪) এবং সেলিমের ছোট বোন নাজমা আক্তার (১৮)।  এ ঘটনায় বহস্পতিবার (৩ জুন) সকালে ১৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

আহত সেলিম জানান, বাড়ির সামনের সড়কে ময়লা ফেলাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী মৃত.তাহের আলীর ছেলে আব্দুল লতিফ (৫০) ও তার স্ত্রী লাকী আক্তার (৪৫)সহ অজ্ঞাত আরা ১২ জন বুধবার রাতে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় আমাকে বাড়ির কাছে পেয়ে এলোপাথারী মারধর করতে থাকে। ওই সময় আমার স্ত্রী সামনেই ছিল। সে আমাকে উদ্ধারের বার বার চেষ্টা করে।

তিনি আরা জানান, এক পর্যায়ে আব্দুল লতিফ আমার স্ত্রীর সামনেই আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় চাপাতি দিয়ে কোপ মারত থাকে। তখন আমার স্ত্রী চিৎকার করে আমাক উদ্ধারের চেষ্টা করলে আব্দুল লতিফ চাপাতির বাট দিয়ে আমার স্ত্রীর মুখে আঘাত করলে বাম চোঁখে লাগে। এতে আমার স্ত্রীর চোঁখে মারাত্মক জখম হয়। এরপর আমার ছোট বোন নাজমার ডাক চিৎকার পরিবারর অন্যান্য সদস্যরা এগিয়ে আসলে আব্দুল লতিফ তার লাকজন নিয়ে চলে যায়। তারা যাওয়ার সময় নাজমাকে এলোপাথারী কিলঘুষি মেরে নীলা ফুলা জখম করে যায়। এ ঘটনায় প্রত্যেকেই শহরের ভিক্টারিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্তিতি শান্ত করা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment