প্রবাসীরা এতো দিন আমাদের দিয়েছেন এখন আমরা তাদের দেবো : প্রধানমন্ত্রী

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কম : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এতদিন প্রবাসীরা আমাদের দিয়েছেন এখন আমরা তাদের দেবো। করোনার কারণে যারা দেশে ফিরে এসেছেন তারা যেন সম্মানজনক কোনো পেশায় যুক্ত হতে পারেন। কিংবা আরও উন্নত প্রশিক্ষণ নিয়ে আবারও বিদেশে ফিরে যেতে পারেন। এছাড়া নারীদের প্রশিক্ষণের জন্য আলাদা প্রকল্প না নিয়ে রাজস্ব খাতে নিয়মিত প্রশিক্ষণের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

বুধবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে এমন নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে বৈঠক পরবর্তী ব্রিফিংয়ে বিষয়টি জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

২ হাজার ৫৭৫ কোটি ৪২ লাখ টাকা ব্যয়ে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন করেছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এসব প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সভায় অংশ নেন তিনি।

বিফ্রিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘রাস্তা নির্মাণ ও সম্প্রসারণে ওভারপাস, আন্ডারপাস ও ইফলুপ তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, রাস্তার কারণে যাতে যান ও মানুষের চলাচল বাধাগ্রস্ত না হয়। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে সড়ক ও জনপ্রশাসন বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

এম এ মান্নান বলেন, এখন থেকে ব্রিজ বানাতে উচ্চতা ঠিক রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, আমাদের দেশ জোয়ার-ভাটার দেশ। তাই ব্রিজের উচ্চতা সঠিকভাবে রাখতে হবে। যাতে নৌ চলাচল বাধাগ্রস্ত না হয়। এজন্য নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে। এছাড়া যেখানে সেখানে বালু মহাল না করার নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বৈধভাবে ব্যবস্থা করা হলেও যেখানে সেখানে বালু মহাল করা যাবে না। এছাড়া খাদ্য প্রক্রিয়াকরণের ক্ষেত্রে দুধ প্রক্রিয়াকরণের উদ্যোগ নিতে হবে। এছাড়া হারবাল মেডিসিনের ব্যবহার বাড়ানোর উদ্যোগ নিতে হবে।

বৈঠকে উদাহরণ দিতে গিয়ে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, ‘ব্রিজের উচ্চতা সঠিক রাখতে হবে। এটি বলার কারণ হচ্ছে, বসিলা ব্রিজ। এখন হয়তো সেটি ভেঙে ফেলতে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে ড. শামসুল আলম বলেন, ‘দেশের দক্ষিণঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনর্র্নিমাণ বা পুনর্বাসন প্রকল্পের আওতায় জরার্জীর্ণ ৮০৫টি লোহার ব্রিজ ভেঙে সেখানে আরসিসি বা পিসি গার্ডার সেতু নির্মাণ করা হবে। এছাড়া ১ হাজার ২৪৪টি লোহার ব্রিজ পুনর্র্নিমাণ বা পুনর্বাসন করা হবে।

একনেকে উপস্থাপিত প্রকল্পগুলো হলো :

৫৮৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কে তিনটি আন্ডারপাস ও পদুয়ারবাজার ইন্টারসেকশনে ইউলুপ নির্মাণ’ প্রকল্প, ১১১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘জেলা মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ (ময়মনসিংহ জোন)’ প্রথম সংশোধিত প্রকল্প, ১৪৬ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘ক্যানবেরায় বাংলাদেশ চ্যান্সারি ভবন নির্মাণ’ প্রকল্প, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ১৭৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘ইনস্টিটিউট অব টিস্যু ব্যাংকিং অ্যান্ড বায়োমেটেরিয়াল রিসার্চের সেবা ও গবেষণা সুবিধাদির আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ’ প্রকল্প, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ৩১ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘জেলাভিত্তিক মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ (৬৪ জেলা)’ তৃতীয় সংশোধিত প্রকল্প, ৭২ কোটি ৯ লাখ টাকা ব্যয়ে ব্যয়ে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্ণাঙ্গ শিশু কার্ডিওলজি ও শিশু কার্ডিয়াক সার্জারি ইউনিট স্থাপন’ প্রকল্প, ৪৯৮ কোটি ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনঃনির্মাণ বা পুনর্বাসন’ প্রথম সংশোধন প্রকল্প, ৪৪৬ কোটি ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘পদ্মা বহুমুখী সেতুর ভাটিতে মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং ও টংগিবাড়ী উপজেলাধীন বিভিন্ন স্থানে পদ্মা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ’ প্রকল্প, ৪২৭ কোটি ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ‘প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের পুনঃএকত্রীকরণের লক্ষ্যে অনানুষ্ঠানিক খাতে কর্মসংস্থান সৃজনে সহায়ক’ প্রকল্প ও ৯৮ কোটি ৬১ লাখ টাকা ব্যয়ে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ‘বিসিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরী, ঠাকুরগাঁও’ প্রকল্প।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment