ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীকে নিয়ে সাংবাদিক ইউনিয়ন অফিসে সাংবাদিক নেতার বৈঠক!

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কম : নারায়নগঞ্জে সাংবাদিক নেতারা এখন সন্ত্রাসী, জমির দালাল, সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের ছাড়িয়ে নেয়ার জন্য পদবী ব্যবহার করে থানায় থানায় তদবীর করার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।

অভিযোগ পাওয়া গেছে, এক সাংবাদিক নেতা সম্প্রতি সিদ্দিরগঞ্জের প্রতারক চক্রের ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামী এমরান কে নিয়ে সাংবাদিক ইউনিয়ন অফিসে থেকে থানায় গ্রেপ্তার না করার জন্য তদবীর করার ঘটনার ছবি ভাইরাল হওয়ার পর শহরে আলোরন সৃষ্টি করে।

অনেকেই সেই ছবি বিভিন্ন সাংবাদিক নেতাদের কাছে পোষ্ট করেন। ছবিতে দেখা যায় নারায়নগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক এবং যমুনা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি আমির হোসেন স্মিথ সাংবাদিক ইউনিয়নের লনে বসে ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামী এমরান এবং অপর একজনের সাথে বসে তদবীর করছেন।

সিদ্দিরগঞ্জ থানার একজন পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, সিআর ৪৭৯/২১ এর মামলার আসামী এমরান হোসেন কে আটক করার জন্য গত ১২ আগষ্ট কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক থেকে একটি নোটিশ আসে। সে অনুযায়ী তাকে ডিবি ও থানা পুলিশ গ্রেফতার করার জন্য অভিযান চালানো হয়। কিন্তু গ্রেফতার করা যায়নি।

সিদ্দিরগঞ্জের ত্রাস হিসেবে পরিচিত এই এমরান প্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছেন তিনি সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতাকে পাচ লাখ টাকা দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে তদবীর করে এলাকায় অবস্থান করছেন। নিজেকে সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিয়ে নিজেকে সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য বলে পরিচয় দিচ্ছেন।

এ ব্যাপারে সিদ্দিরগঞ্জের কয়েকজন সাংবাদিক জানান, এমরান একজন ভুমিদস্যু। বিভিন্ন প্রতরনা কাজে সে জড়িত। এ বিষয়ে কয়েকটি পত্রিকায় নিউজ হয়েছে। কিন্তু ওয়ারেন্ট থাকা সত্বেও তাকে আটক করা হয়নি।

এদিকে মামলার বাদী মোস্তফা জানান, ২০১৪ সালে জমি বিক্রির নামে ১১লাখ টাকা আত্বস্বাত করায় তার বিরুদ্ধে মামলা কওে ওয়ারেন্ট করানো হয়।

কিন্তু পুলিশ অজ্ঞাত কারনে তাকে গ্রেপ্তার করেনি। এ ব্যাপারে সিদ্দিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলেও তিনি কোন কথা বলতে রাজি হয়নি।

নারায়নগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবদুস সালামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এমন একটি ছবি আমার ম্যাসেনজারে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি কতটুকু সত্য এ ব্যপারে আমরা যাচাই করে দেখছি। উল্লেখ্য ইতিপুর্বেও এই সাংবাদিক নেতার বিরুদ্ধে আর্থিক সুবিধা গ্রহনের অনেক অভিযোগ রয়েছে।

সাবেক এমপি কায়সার হাসনাতের সময় এই সাংবাদিককে সিদ্ধিরগঞ্জে নানা অপকর্ম করার কারণে অবাঞ্চিত ঘোষনা করা হয়েছিল। সেসময়ে তার বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ থাকলেও এমপি কায়সার হাসনাতের আশ্রয়ে পার পেয়ে যান।

সম্প্রতি এই সাংবাদিক একজন শিল্পপতির সঙ্গে সখ্যতা গড়ে হেলিকপ্টারে শ্রীমঙ্গল ভ্রমনে যান। যার ছবি তিনি নিজেই তার ফেইসবুক পেইজে পোষ্ট করেছিলেন। এই শিল্পপতির সঙ্গে সখ্যতার বিষয়টি নিয়েও নানা কথা রয়েছে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment