পুলিশি বাঁধায় জেলা বিএনপির সভা পন্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুলিশের বাধায় মাসদাইরে এড.তৈমুর আলম খন্দকারের বাসভবন মজলুম মিলানায়তনে জেলা বিএনপি আয়োজিত বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বাষির্কীর আলোচনাসভা পন্ড হয়ে গেছে। বুধবার সকাল থেকেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ মাসদাইরের ঐবাড়িটি ঘিরে রাখাসহ বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নিয়েছেন।

তবে পূর্ব নির্ধারিত আলোচনা সভায় অংশ নিতে বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা আশেপাশে অবস্থান নিলেও ভেতরে প্রবেশ করতে পারেনি। এসময় জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতাদেরও আশেপাশে দেখা যায়নি। জেলা বিএনপির আহবায়ক তৈমুর আলম আলম খন্দকার নিজেও তার বাড়িতে প্রবেশ করতে পারেনি।

এব্যাপারে জেলা বিএনপির আহবায়ক তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, আমাদের দলের প্রতিষ্ঠা বাষির্কী পালনের জন্য আমরা পূর্ব থেকেই কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলাম। কিন্তু সকাল থেকেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন স্তরের সদস্যরা আমার বাড়ি ও আশোপাশে সড়কগুলোতে অবস্থান নেয়। এসময় পুলিশও মারমুখি ভ‚মিকায় ছিল। তবে পূর্ব নির্ধারিত এই কর্মসূচিতে অংশ নিতে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে নেতাকর্মীরা আশেপাশে অবস্থান নিলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ভয়ে কেউ আমার বাড়ীতে প্রবেশ করেনি।

তৈমুর আলম বলেন, বিগত দিনে জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের কর্মসূচি আমার বাসভবন মজলুম মিলানায়তনে অনুষ্ঠিত হতো। কিন্তু গত সপ্তাহে স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীসভা পুলিশি বাঁধার মুখে পন্ড হয়ে যায়। তারই ধারাবাহিকতায় আজকেও অনুষ্ঠাটি পুলিশি বাঁধার মুখে পন্ড হয়ে যায়।

উল্লেখ্য যে, ১৭ আগস্ট নারায়ণগঞ্জের মাসদাইর এলাকায় জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের বাড়িতে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে ছাত্রদল। এতে সভাপতির বক্তব্যে জেলা ছাত্রদল সভাপতি মশিউর রহমান রনি বলেন, আজকে (মঙ্গলবার) ঢাকার কর্মসূচিতে (জিয়া উদ্যানে) পুলিশ বিনা উসকানিতে হামলা করেছে। আমি জানি না, পুলিশ কাদের লোক। তারা কি সাধারণ জনগণের নাকি শেখ হাসিনার? আমি বলে দিতে চাই, যদি শেখ হাসিনার হয়ে থাকেন, আপনারা যে পোশাক পরিধান করে থাকেন সেটা জনগণের ট্যাক্সের টাকায় কেনা। যদি ছাত্রদল এবং তারেক রহমান চিন্তা করে পুলিশের সেই পোশাক খুলে ফেলবে। সেটা আমাদের ওয়ান-টু ব্যাপার মাত্র। ছাত্রদল পুলিশকে প্রতিহত করবে।

এরপর থেকেই তৈমুর আলম খন্দকারের বাসভবনে বিএনপির যে কোন কর্মসূচি পুলিশি বাঁধার কারণে পন্ড হয়ে যাচ্ছে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment