ফতুল্লায় রসুলপুর এলাকায় চাকদা স্টিল রোলিং মিলে ৫ শ্রমিক দগ্ধ

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কম ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় আগুন ছিটকে এসে একটি স্টিল কারখানায় ৫জন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছে।

সোমবার দুপুরে ফতুল্লার রসুলপুরে সিএসআরএম(চাকদা স্টিল রোলিং মিলস্) নামক  স্টিল কারখানায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দগ্ধদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

দগ্ধরা হলেন সোহেল রানা (৩৬), লিটন (৩৫), আরিফ (২৭), বিল্লাল হোসেন (৩৫) ও মোহাম্মদ আলী (২৬)। তাদের শরীরের ৫২ শতাংশ থেকে ১১ শতাংশ পুড়ে গেছে। এদের মধ্যে মোহাম্মদ আলীর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

এদিকে কারখানা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি ধামা চাপা দেয়ার চেস্টা করায় স্থানীয় থানা পুলিশ ও সাংবাদিকরা বিষয়টি সন্ধ্যায় জানতে পারেন। এরপর ওই কারখানায় শিল্পপুলিশ,থানা পুলিশ ও বেশ কয়জন সাংবাদিক গিয়ে তথ্য চাইলে কারখানার নিরাপত্তাকর্মীরা দুর্ঘটনার বিষয়টি অস্বীকার করেন এবং কারখানায় পুলিশ ও সাংবাদিক কাউকে প্রবেশ করতে দেয়নি।

নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের এসআই আব্দুর রহমান জানান,তারা প্রথমে স্বীকারই করেনি তাদের কারখানায় দুর্ঘটনা ঘটেছে। পরে গেইটের সামনে দীর্ঘ ত্রিশ মিনিট  দাড়িয়ে থেকে অনেক চেষ্টা করে কারখানার ভিতর প্রবেশ করেছি। কিন্তু নিরাপত্তাকর্মীরা ঘটনাস্থলে না নিয়ে গেইটের কাছে একটি রুমে বসিয়ে তাদের ইচ্ছে মত তথ্য দিয়েছে। বিষয়টি দুঃখ জনক।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স নারায়ণগঞ্জের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন বলেন, ‘দুপুরে সিএসআরএম স্টিল কারখানায় রড তৈরির জন্য ফার্নিশের ভেতর লোহা গলানো হচ্ছিল। তবে এ ফার্নিশারের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় গলিত লোহা ছিটকে শ্রমিকদের শরীরে পড়ে। এতে ৫ জন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছে। তাদের উদ্ধার করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি আমরা সন্ধ্যায় জানতে পেরে কারখানায় লোক পাঠিয়েছি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, ফতুল্লার সিএইচআরএম মিল থেকে পাঁচ শ্রমিক দগ্ধ হয়ে এসেছেন। তাদের শেখ হাসিনা জার্তীয় বার্নে ভর্তি করা হয়েছে।

এবিষয়ে কারখানার নিরাপত্তাকর্মীরা শাহআলম জানান,৫জন দগ্ধ হয়েছে তারা চিকিৎসাধীন রয়েছে। মালিকপক্ষের নির্দেশনা না থাকায় তথ্য দিতে পারিনি।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment