দূর্ধর্ষ ওসমান গণিকে রুখবে কে

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কম : নারী সাংবাদিক মনি ইসলামের পেটে লাথি দেয়া দূর্ধর্ষ ওসমান গণির বিরুদ্ধে ৭টি হত্যা মামলাসহ প্রায় ২২টি মামলা রয়েছে।এর মধ্যে সবচেয় আলোচিত মামলা হলো, প্রকাশ্যে দিবালোকে বক্তাবলী আকবরনগর এলাকায় মাটি ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদীনের মুখে টেটাবিদ্ধ করে নির্মমভাবে হত্যা করে এই দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসী।

ফতুল্লার বক্তাবলী আকবরনগর এলাকায় একটি কুচক্র মহল নারী সাংবাদিক মনি ইসলামের ওপর হামলাকারি সন্ত্রাসী ওসমান গণিকে নিরীহ ও ভদ্র হিসাবে আখ্যা দিয়ে যাাচ্ছে।

উল্লেখ্য ফতুল্লা বক্তাবলী আকবরনগর গ্রামের সামদ আলীর ছেলে ওসমান গণি ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে রয়েছে বিভিন্ন জেলায় একাধিক মামলা।থানা ও আদালত সূত্রে, নারায়ণগন্জ জেলার ফতুল্লা মডেল থানার এফআর নং- ১৫ তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ হত্যা মামলা, ফতুল্লা থানা মামলা নং- ৪৯ তারিখ ১০ আগস্ট হত্যা মামলা, ফতুল্লা থানা মামলা নং- ১১(১) ২০০৯ হত্যা মামলা, ফতুল্লা থানা মামলা নং-২৩ (১২) ২০১১ হত্যা মামলা, মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরজাদিখান থানা মামলা নং- ৫(৪) ২০১৬ ইং হত্যা মামলা, মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখান থানা ৩(৭) ২০১৩ ইং হত্যা মামলা, ,মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখান থানা মামলা নং ২৩(৭) ২০১৩ ইং হত্যা মামলা, মুন্সীগঞ্জ সিরজাদিখান মামলা নং৭(৪)২১৬৫ ধর্ষন মামলা, ফতুল্লা মডেল থানা মামলা নং-৬(১১)২০০৯ ছিনতাই মামলাসহ কেরানীগঞ্জ থানায়সহ মোট ২০-২২ টি মামলা রয়েছে এই ওসমান গণির নামে।

স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল আনন্দ টিভির ফতুল্লা প্রতিনিধি নারী সাংবাদিক মনি ইসলাম বাদী হয়ে সন্ত্রাসী ওসমান গণিসহ ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করে। পরবর্তীতে র‌্যাব-১১ টীম গত (২৭ অক্টোবর) ভোর ৪ টায় রাতে লাল মিয়ার চর এলাকায় অভিযান চালিয়ে সন্ত্রাসী ওসমান গনিকে আটক করে।বর্তমানে সেই দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসী ওসমান গণি জেলে রয়েছে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment