সার্চ কমিটি যেন আওয়ামী লীগের নির্বাচন উপকমিটি : রুহুল আমিন

নারায়ণগন্জ নিউদ ২৪ ডট কমঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সদস্য রুহুল আমিন শিকদার বলেছেন, এই অবৈধ বিনা ভোটের সরকার বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে দীর্ঘদিন পরিত্যক্ত কারাগারের বন্দী রেখে তাকে সুচিকিৎসা বঞ্চিত করে আজ মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে। আইনের অপব্যাখ্যা দিয়ে এই সরকার বেগম খালেদা জিয়া কে সুচিকিৎসার জন্য বিদেশ যাত্রার পথও বন্ধ করে রেখেছে।

রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানা কৃষক দলের উদ্যোগে বারদী ইউনিয়নের মছলন্দপুর পশ্চিম পাড়া গ্রামে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, বিদেশে সুচিকিৎসার দাবী ও জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম সজীবের সুস্থতা কামনায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

সোনারগাঁ থানা কৃষক দল সভাপতি মোঃ ফজলুল মেম্বারের সভাপতিত্বে ও সোনারগাঁ থানা কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক সেলিম হোসেন দিপুর সঞ্চালনায় উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রুহুল আমিন শিকদার।

রুহুল আমিন শিকদার বলেন, এই আওয়ামী সরকার দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করে দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা পাকাপোক্ত করার জন্য দেশ ও দেশের জনগনের কথা চিন্তা না করে তড়িগড়ি করে একটি নির্বাচন কমিশন গঠন আইন পাশ করেছে। দেখলাম সার্চ কমিটি গঠন করছে আওয়ামী লীগের দলীয় লোকজন দিয়ে যে নাকি গতবার সংসদ নির্বাচনে নৌকার নমিনেশন চেয়েছে।

আমি এই সভা থেকে রাতের ভোটের সরকারকে বলে দিতে চাই, দলীয় লোক দিয়ে সার্চ কমিটি গঠন করে যে নিবার্চন কমিশনের নাম প্রস্তাব করা হবে সেই কমিশন দিয়ে এই দেশে কোন নিবার্চন হবেনা। ইনশাআল্লাহ এই সরকারকে আন্দোলনের মাধ্যমে বিদায় করে নতুন নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে আগামী সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমান বলেছেন, হাসিনা সরকারের অধীনে বিএনপি আর কোন নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবে না। জননেতা তারেক রহমানের নেতৃত্বে আমরা দেশের গণতন্ত্র পুণঃউদ্ধার আন্দোলন করে যাচ্ছি, দেশ বাঁচাতে গণতন্ত্র বিরোধী আওয়ামী অপশক্তি কে রুখতেই হবে।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে শতাধিক দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরন করা হয়।

এতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বারদী ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি আব্দুল করিম মেম্বার, ডাক্তার রফিক, সোনারগাঁ থানা বিএনপি নেতা ডাক্তার মিজান, সোনারগাঁ থানা কৃষক দলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ জব্বর, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর, দলের সোনারগাঁ থানা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আলমাছ, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক আতাউর মেম্বার, সনমান্দী ইউনিয়ন যুবদলের সদস্য সচিব খোকন সিকদার, সোনারগাঁ থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য নুরুল হক নুরু, সোনারগাঁ থানা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শহীদুল্লাহ, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক মাওলানা ওমর ফারুক, সাদিপুর ইউনিয়ন কৃষক দলের সভাপতি সবুর মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রোকনুজ্জামান, সহ সভাপতি রাকিবুল ইসলাম, সাদিপুর ইউনিয়ন কৃষক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক শান্ত প্রধান, বারদী ইউনিয়ন যুবদলের সিনিয়র যুগ্ন আহ্বায়ক সানোয়ার হোসেন, বারদী ইউনিয়ন কৃষক দল নেতা আবুল খায়ের বারদী ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহেল, বারদী ইউনিয়ন ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান, বারদী ইউনিয়ন ৪ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা মোঃ আমিনুল, মোহাম্মদ শাহিন, মোহাম্মদ হেলেন, হারুন, বারদী ইউনিয়নে শ্রমিকদল নেতা মোহাম্মদ হেলাল মিয়া, মোহাম্মদ মিজান, মোহাম্মদ সালাহ সহ বিএনপির অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment