র‌্যাব-১১ দুইদিনের পৃথক অভিযানে ৯জন আটক, মাদক উদ্ধার

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কমঃ র‌্যাব-১১ দুইদিনের পৃথক ৬টি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৯জনকে আটক করা হয়েছে।

র‌্যাবের দাবি আটককৃত প্রত্যেকেই মাদক ব্যবসায়ী। ৬ এপ্রিল থেকে ৭ এপ্রিল সিদ্ধিরগঞ্জ ও বন্দর থানা এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে অভিযান পারিচালনা করে তাদের আটক করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৩০৩ বোতল ফেন্সিডিল, ৭ কেজি গাঁজা, ১১টি বিভিন্ন মডেলের মোবাইল ফোন, মাদক ক্রয় বিক্রয়ের ১৫ হাজার ১১০টাকা, ৩টি প্রাইভেটকার, ১টি মোটর সাইকেল ও ১টি স্কুটি জব্দ করা হয় বলে জানায় র‌্যাব।

আটককৃতরা হলো, সিদ্ধিরগঞ্জ পাইনাদী এলাকার মো. আবুল হোসেনের ছেলে মো. রুবেল হোসেন (২৬), পিরোজপুর ভান্ডারিয়া এলাকার আ. মালেকের ছেলে মো. পলাশ (২২), লালমনির হাট হাতীবান্ধার উত্তর যাওরানী এলাকার আ. গনি মিয়ার ছেলে মো. মমিনুল (৩৫), ডিএমপির বংশাল জগন্নাথ বসাক লেন নবাবপুর এলাকার হারুন অর রশিদের ছেলে মো. মাসুম (৩২), কুমিল্লা দেবীদ্বার এলাকার হাজী মো. সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে মো. বশির আহমেদ (২২), কুমিল্লা চান্দিনার রানীচরা এলাকার আ. রব মোল্লার ছেলে মো. বেলাল হোসেন (৩০), ফতুল্লা ভোলাইল শান্তিনগর এলাকার মো. আবুল কাশেম এর ছেলে মো. আল আমিন (৪২), ফতুল্লা পঞ্চবটি আমতলা এলাকার মৃত আ. রহমানের ছেলে মো. রাজু (৪০) ও ডিএমপির গেন্ডারিয়া ধুপখোলা ডিস্ট্রারী রোড এলাকার মৃত নীহাল ইসলামের ছেলে মো. রহমত উল্লাহ (৫২)।

র‌্যাব-১১ সহকারী পরিচালক (এএসপি) মো. সরাট তালুকদার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, আটককৃত আসামীরা প্রত্যেকেই মাদক পাচারকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন কৌশলে দীর্ঘদিন যাবৎ ফেন্সিডিল ও গাঁজা পরিবহন করে নিয়ে এসে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করে আসছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে। মাদকের মতো সামাজিক ব্যাধির বিরুদ্ধে র‌্যাব-১১ এর অভিযান অব্যাহত থাকবে। আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment