আড়াইহাজারে ভ্যান চুরির অভিযোগে দুই যুবককে গাছে বেঁধে নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম: ভ্যান চুরির অভিযোগে দুই যুবককে গাছে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ মে) দুপুরে আড়াইহাজারের বিশনন্দী ইউনিয়নের রামচন্দ্রী এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে।

দুই যুবককে গাছের সাথে বেঁধে পেটানোর ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। রাত ৮ টায় আড়াইহাজার থানায় ওই দুই যুবককের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আড়াইহাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিজুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে সেখান থেকে দুই যুবককে থানায় নিয়ে আসে। পরে তাদের বিরুদ্ধে ভ্যান চালক মনির ভূইয়া বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

‌নির্যা‌তিত দুই যুবক কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার জামাইল গ্রামের মো. নাছির (১৯) ও শরিয়তপুর শখিপুর উপজেলার কদমতলী গ্রামের মোস্তফার ছেলে মো. বিল্লাল হোসেন (২৮)। তারা উভয় নরসিংদীর মাধবদী‌তে ভাড়া থাকেন। পেশায় রাজমিস্ত্রি।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, দুপুর ১২ টায় তার বাড়ির পাশে মামা-ভাগিনা সাইজিং মিলের পাশে তার পুরাতন ভ্যানটিতে তিনি বাড়ীতে যান। আধাঘন্টা পর বাড়ী থেকে সাইজিং মিলের সামনে গিয়ে দেখেন গেলে ভ্যানটি নেই। এরপর তিনিসহ আরও কয়েকজন ভ্যানটি খোঁজাখুজি শুরু করেন। কিছুদূর সামনে গিয়ে দেখেন অজ্ঞাতনামা দুইজন তার ভ্যান গাড়ীটি নিয়ে যাচ্ছে তখন মামলার বাদীসহ আরও কয়েকজন ওই দুই যুবককে হাতেনাতে আটক করে ভ্যান গাড়াটি উদ্ধার করে। পরে ভ্যানগাড়ী সহ রামচন্দ্রী এলাকায় গিয়ে আড়াইহাজার থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে পুলিশ গিয়ে তাদের থানায় নিয়ে আসে। তবে মামলার কোথাও দুই যুবককে নির্যাতন করার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে মামলায় বাদী মনির ভূইয়ার মুঠোফোনে কল করা হয়। ফোন রিসিভ করে একজন বলেন তিনি মনিরের ছোট ভাই। মনির ফোন চালান না। ঘটনার বিষয়ে চানতে চাইলে তিনি বলেন, ওই দুইজনকে পিটিয়েছে গ্রামবাসী। আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না।

ছেলেকে নির্যাতনের খবর পেয়ে মো. নাছিরের মা আয়শা বেগম নরসিংদীতে মাধবদী থেকে ছুটে আসে আড়াইহাজার থানায়। তিনি বলেন, আমার ছেলেরে কামের কথা বইল্লা ঘর থ্যাইকা ডাইকা নিয়া আসছে বিল্লাল। বিকেলে ফোনে জানতে পারলাম ওরে মারতাছে। পরে এখানে আইসা দেখি পুলিশে থানায় নিয়া আসছে। থানায় আইসা দেখি আমার পোলার চুল কাইট্টা রাখছে। অনেক মারছে।

আড়াইহাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিজুল ইসলাম জানান, তাদের রশি দিয়ে বেঁধেছে স্থানীয় জনসাধারণ। পুলিশ গিয়ে তাদের থানায় এনেছে। যদি ওই দুই যুবককের পরিবার কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তাহলে আমরা তাদের বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা নিবো।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment