সোনারগাঁয়ে শীর্ষ সন্ত্রাসী টাইগার মোমেন ও তার সহযোগীদের রুখবে কে?

নারায়ণগন্জ নিউজ ২৪ ডট কমঃ সোনারগাঁয়ে থেমে নেই শীর্ষ সন্ত্রাসী সাব্বির হোসেন মোমেন ওরফে টাইগার মোমেন ও তার সহযোগীরা। সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর এলাকার আমির হোসেনের ছেলে সন্ত্রাসী সাব্বির হোসেন মোমেন ওরফে টাইগার মোমেন, তার সহযোগী আশেক আলির ছেলে মামুন ও শান্ত সহ ১৫/২০ জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বিভিন্ন সময় এ বাহীনিরা অপকর্ম করে আসছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সন্ত্রাসী সেলিম ও শীর্ষ সন্ত্রাসী সাব্বির হোসেন মোমেন ওরফে টাইগার মোমেন ও তার সহযোগীরা গত শনিবার রাতে সোনারগাঁও কাঁচপুর এ্যাপোলো হাসপাতাল এন্ড কম্পিউটারাইজড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এসময় হাসপাতালের মালিক, তার স্ত্রী ও দারোয়ানসহ কয়েকজনের উপর হামলা চালিয়ে তদের গুরুতর আহত করে এবং প্রাননাশের হুমকি প্রদান করে।

অভিযুক্ত মোমেন দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড থেকে মদনপুর মহাসড়কে চুরি ডাকাতি ছিনতাই মাদক সহ ভিবিন্ন অপকর্ম করে আসছে। এসব অপকর্ম করার জন্য তৈরি করা হয়েছে বিশাল এক সন্ত্রাসী বাহিনী।

সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালে হামলার পর কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেনের ভাই উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যন বাবু ঘটনাস্থলে গেলেও কোন এ্যাকশন নিতে পারেনি। এক অদৃশ্য শক্তির বলে এদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।

সন্ত্রাসী সাব্বির হোসেন মোমেন ওরফে টাইগার মোমেন একাধিক মামলার আসামি খুন, ধর্ষন ও মাদকসহ অনেক অভিযোগ থাকা সত্তেও কোন এক অজানা রহস্যের কারনে সোনারগাঁও থানা পুলিশ কোন পদক্ষেপ গ্রহন করছে না। এমনকি চেয়ারম্যান এর ভাই বাবুকেও কোন তোয়াক্কা করেনা এই মোমেন বাহিনি। প্রসাশনের এমন নিরব ভুমিকায় এলাকার সাধারন মানুষ ভীত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কাঁচপুর এলাকার একাধিক বাসিন্দা এই মোমেন ওরফে টাইগার মোমেন বাহীনির জিম্মিদশা থেকে মুক্তি পেতে স্থানীয় প্রশাসন ও র‌্যাব -১১’র হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৩০ এপ্রিল দুপুরে সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাইন এলাকা থেকে ১টি বিদেশী পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি, ২শ পিস ইয়াবা, ১ লিটার বাংলা মদ, নগদ ১০হাজার টাকা ও ৩ টি মোবাইল ফোনসহ টাইগার মোমেন ও তার এক সহযোগীসহ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১১। সম্প্রতি জামিনে এসে এই সন্ত্রাসী বাহীনিরা আবারো শুরু করছে ভিবিন্ন অপরাধ-অপকর্ম।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment