ফতুল্লায় মুন্সিবাগ এলাকায় চাঁদার দাবিতে সিমেন্ট ব্যবসায়ীকে মারধর

নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম ডেস্ক: ফতুল্লা থানাধিন কুতুবপুর ইউনিয়ন-মুন্সিবাগ এলাকায় চাঁদার দাবীতে আবুল হোসেন (৩৮) নামক এক সিমেন্ট ব্যবসায়ীকে হাতুড়ি দিয়ে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে খালেক ও মালেক বাহিনীর বিরুদ্ধে।

বুধবার (২২ জুন) বেলা ১১ টায় ফতুল্লা থানার কুতুবপুর মুন্সিবাগ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহত সিমেন্ট ব্যবসায়ী বাদী হয়ে কুতুবপুরের খালেক, মালেকসহ আট জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

লিখিত অভিযোগে সূত্রে জানা যায়, মুন্সিবাগ এলাকায় আবুল হোসেনের একটি সিমেন্ট বিক্রির দোকান আছে।

একই এলাকায় যুবলীগ নামধারী নেতা খালেক-মালেকও সিমেন্টের ব্যবসা করে আসছে। নতুন করে আবুল এলাকায় দোকান দেয়ায় তার কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল এই সন্ত্রাসীরা। এ নিয়ে বাদীকে প্রায় সময় হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলো।

এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল বেলা ১১ টার দিকে খালেক বাহিনীর প্রধান খালেক, আনোয়ার, দেলোয়ার, বাদশা, হিব্রু, কয়লা সাহাবুদ্দিন, ফকির খোকন সহ অজ্ঞাতনামা আরও ৫-৬ জন সন্ত্রাসী হাতুড়ি, লোহার পাইপ, কাঠের টুকরো নিয়ে আবুলের সিমেন্টের দোকানে প্রবেশ করে চাঁদা দাবি করে।

সে টাকা প্রদানে অস্বীকার করলে দোকান থেকে রাস্তায় টেনে এনে এলোপাতাড়ি মারধর সহ হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। এ সময় আবুল বাঁচার জন্য আর্তনাত করলে তার মা, স্ত্রীসহ স্বজনেরা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা তাদেরকে পেটায়।

হামলার ঘটনাটি উৎসুক একজন মোবাইলে ধারন করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে দেন। মুহুর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওতে দেখা যায় খালেক মালেক বাহিনীর সন্ত্রাসীরা একটি দোকানের সামনের হাঁটু পানির ভিতরে এক যুবক কে মারধর করছে। যুবক কে রক্ষার্থে বোরখা পরিহিত এক মহিলা এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করে হামলাকারীরা।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত খালেক মুন্সি জানায়, আবুল হোসেনের সাথে তার চাচার ব্যবসায়ীক দ্বন্ধ। সেই দ্বন্দ্বের জের ধরে আবুল হোসেন তার চাচাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটায়। তিনি তা দেখতে পেয়ে চাচাকে রক্ষার্থে এগিয়ে যান।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান জানায়, ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত করে সত্যতা পেয়েছি।

জনপ্রতিনিধিসহ স্থানীয়দের সাথে আলাপ করে জানতে পেরেছি অভিযুক্তরা খুবই খারাপ প্রকৃতির লোক। অভিযোগের ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment